Twitter কি আর এটি কিভাবে চালাবো?

আজকের এই পোস্টে আমি আপনাদের Twitter কি এটি কিভাবে চালাবেন এই সম্বন্ধে বলব যদিও বেশির ভাগ মানুষ Twitter এর সম্বন্ধে জানেন যে Twitter এর মাধ্যমে পুরো পৃথিবী একে অপরের সাথে জুড়ে রয়েছে

হ্যাঁ যদি আজ কেউ পুরো পৃথিবীর কোন ঘটনার নিয়ে তাদের বিচারধারা প্রকাশ করতে চান তাহলে তারা Tweet করে দেন কোন খবর পৃথিবী কে জানানোর জন্য tweet করতে পারেন

কিন্তু আমরা বেশিরভাগ দেখি যে Twitter এর সাধারণত বড় বড় সেলিব্রিটি মানুষেরা ব্যবহার করেন এমনিতে Twitter এর বেশি ব্যবহার সাধারণ মানুষ করেন না যেভাবে তারা বাকি সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম ফেসবুক আর ইনস্টাগ্রাম কে ব্যবহার করেন

এজন্য অনেক মানুষ এটা বোঝেন যে Twitter প্ল্যাটফর্ম শুধু ব্যবহারের জন্য বানানো হয়েছে কিন্তু এটা একদমই সঠিক নয় যাদের নিজস্ব কোন বিজনেস রয়েছে তারাও Twitter এর মাধ্যমে তাদের কাস্টমারের সাথে জুড়তে পারেন

কারণ 330 million মানুষ monthly Twitter এ অ্যাক্টিভ থাকেন তাই যেকোনো বিজনেসের জন্য Twitter একটি খুবই ভালো প্ল্যাটফর্ম তাদের প্রোডাক্ট বাস সার্ভিস কে রিলেভেন্ট মানুষদের কাছে পৌঁছাতে চান যদিও অনেক ছোট বড় বিজনেস already Twitter এর মাধ্যমে প্রমোশন করছেন

এছাড়া অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম এর মতই Twitter এ অনেক features রয়েছে যেগুলো আমাদের অনেক কাজে আছে কিন্তু এর আগে আমাদের Twitter এর সম্বন্ধে জেনে রাখা খুবই জরুরি

Twitter কি আর এটি কিভাবে চালাবো

 

Twitter কি?

Twitter একটি এমন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম যেখানে আমরা ছোট মেসেজ send আর receive করতে পারি যেটিকে ‘Tweet” বলা হয়

‘tweet’ আপনি 140 ক্যারেক্টার এরমধ্যে করতে পারেন এখানে আপনি ওয়েব সাইটের লিংক আর বাকি resources কে অ্যাড করতে পারেন

Twitter এ রেজিস্টার করা ইউজারদের পোস্ট, লাইক, কমেন্ট আর retweet করার অনুমতি দেয়

Twitter এ একজন ইউজার অন্য ইউজার কে ফলো করে basically Twitter এ আপনাকে কোন ফেসবুক বা ইনস্টাগ্রামের মতো পোস্ট করতে হবে না শুধু 140 ক্যারেক্টার এর একটি মেসেজ লিখতে হবে যেটিকে ‘tweet’ বলা হয় হ্যাঁ আপনি আপনার ওয়েবসাইটের লিংক অবশ্যই সেই tweet এ অ্যাড করতে পারবেন

আশা করছি আপনারা বুঝে গিয়েছেন Twitter কি আর এবার আমরা জানবো Twitter এর শুরু কিভাবে হয়েছিল অর্থাৎ Twitter কিভাবে বানানো হয়েছিল?

Twitter কিভাবে বানানো হয়েছিল?

বন্ধুরা Twitter এর ফাউন্ডার Jack Dorsey এর একটি স্বপ্ন ছিল যে তিনি একটি এমন প্ল্যাটফর্ম বাড়াবেন যেখানে মানুষ শর্ট মেসেজ এর মাধ্যমে তারা তাদের আইডিয়া পুরো পৃথিবীতে শেয়ার করতে পারে

আর 21 March 2006 এ তিনি Evan Williams এর সাথে মিলে এমনই একটি প্ল্যাটফর্ম বানিয়েছিলেন যেটির নাম তারা প্রথমে দিয়েছিলেন AOL Instant messenger কিন্তু 15 জুলাই তারা এটির নাম বদলে Twitter নামকরণ  করেছিলেন

এরপর কখনোই Jack Dorsey আর টিম পিছনে ফিরে দেখেন নি আর তারা ক্রমাগত Twitter এর ইউজারদের জন্য  এটিকে ভালো করে এগিয়ে নিয়ে চলেছেন

এর ফলে কিছু বছরের মধ্যে Twitter পুরো পৃথিবীর টপ সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট হয়ে গিয়েছে আপনারা দেখে থাকবেন বড় বড় ঘটনার এর তথ্য এখন যে কেউ tweet করে দিয়ে দেয়

পৃথিবীতে অনেক বড় ঘটনা ঘটে থাকে ভাই মানুষ সেই ঘটনার পরিপেক্ষিতে তাদের প্রতিক্রিয়া বা তাদের বিচারধারা tweet করে প্রকাশ করেন

যদিও Jack Dorsey এখানেই থেমে থাকেননি Twitter কে আরো ভালো বানানোর জন্য আরও এটি তে নতুন নতুন features অ্যাড করে চলেছেন যাতে ইউজার বেশি attract হতে পারে আর Twitter এর সাথে জুড়ে

Twitter কোন দেশের?

Twitter আমেরিকা দেশের এর হেডকোয়াটার San Francisco, California, United States

 

Twitter কবে শুরু হয়েছিল?

21 মার্চ 2006 এ Twitter এর শুরু হয়েছিল এটিকে Jack Dorsey, Evan Williams, Biz Stone, Noah Glass বানিয়েছিলেন

মানুষের মনে সব থেকে বড় যে প্রশ্নটি ঘুরপাক খায় সেটি হল Twitter কিভাবে চালাবো?

তাহলে সর্বপ্রথম আমরা এটা জানব যে আমরা Twitter এ একাউন্ট কিভাবে বানাবো এটি খুবই সহজ

 

Twitter এ একাউন্ট কিভাবে বানাবো?

Step 1. আপনাকে সর্বপ্রথম Twitter.com এ আর সেখানে দুটো বাটন দেখতে পাবেন Sign Up আর Login নামের যদি আপনি প্রথমবার Twitter এ আপনার একাউন্ট খুলতে যাচ্ছেন তাহলে আপনাকে Sign Up বাটনটিতে ক্লিক করতে হবে

Step 2. Sign UP বাটন টিতে ক্লিক করার পর আপনার সামনে একটি create account এর পেজ ওপেন হবে সেখানে আপনাকে আপনার name, phone number, DOB ফিল করে Next অপশনটিতে ক্লিক করতে হবে

Step 3. এরপর আপনার সামনে create your account নামের একটি পপ-আপ আসবে আপনাকে সেখানে আপনার username আর password দিয়ে signup অপশনটিতে ক্লিক করতে হবে

Step 4. এরপর আপনার দ্বারা দেওয়া ফোন নাম্বার টি ভেরিফাই করার জন্য আপনার ফোনে একটি কোড পাঠানো হবে সেটিকে আপনাকে আপনার Twitter একাউন্টে দিতে হবে

এরপর আপনার Twitter অ্যাকাউন্ট সম্পূর্ণভাবে ওপেন হয়ে যাবে এরপর আপনার সামনে আরো কিছু অপশন আসবে যেমন –  আপনি কোন ফিল্ডে ইন্টারনেট ব্যবহার করেন সেটিকে সিলেক্ট করুন যদিও এই অপশনগুলি আপনি এখন skip করে পরে ফিলাপ করতে পারেন

এছাড়া আপনার Twitter একাউন্টে পৌঁছানোর পর আপনাকে Edit profile এ ক্লিক করে আপনার Twitter প্রফাইল পিকচার আর কভার photo কে এড বা চেঞ্জ করতে পারবেন

সাথে আপনি আপনার একটি ছোট bio দিতে পার আপনি কোন দেশের আপনার যদি কোন ওয়েবসাইট থাকে সেই ওয়েব সাইটের URL দিতে পারবেন এরপর আপনাকে Save অপশনটিতে ক্লিক করতে হবে

 

Twitter কিভাবে চালাবো?

যখন আপনার Twitter একাউন্ট তৈরি হয়ে যাবে কিন্তু এটিকে কিভাবে চালাবেন এই সম্বন্ধে আপনারা কি জানেন? তাহলে চলুন এই বিষয়ে বিস্তারিত ভাবে জেনে নিই

Tweet

সর্বপ্রথম আর গুরুত্বপূর্ণ জিনিস হল Twitter এর Tweet এর সাহায্যে আপনি আপনার followers পর্যন্ত আপনার কথা ভাব বিচার বলতে পারেন

এর জন্য লেফট সাইডে ট্যাব এর নিচে আপনি ব্লু রঙের একটি বড় বাটন দেখতে পাবেন সেখানে Tweet লেখা সেখানে ক্লিক করে আপনি আপনার মেসেজ লিখে সেন্ড করতে পারবেন

হ্যাঁ যদি আপনি কোন মানুষকে specific ট্যাগ করে মেসেজ করতে চান তাহলে আপনাকে tweet করা @ টাইপ করতে হবে আর তারপর সেই মানুষটার username লিখতে হবে

Retweet

আপনি যেমন ফেসবুকে অন্য কারো পোস্ট শেয়ার করেন যেগুলো আপনার ভালো লাগে ঠিক সেইভাবে Twitter এ আপনাকে Retweet এর অপশন দেওয়া হয়েছে কোনো পোস্টকে শেয়ার করার জন্য

Bookmarks

Twitter এ bookmark এর যে আপনি কোন পোস্ট কে save রাখতে চান

#hashtag

#hashtag এর নাম আপনি অনেক শুনে থাকবেন বিশেষ করে Twitter এর ক্ষেত্রে এটির ব্যবহার আপনি তখনই করেন যখন আপনি কোন টপিক এর সাথে জুড়তে চান

যেমন আজকাল অনেক ট্রেন্ডিং টপিক আছে সেই টপিক সম্বন্ধে একটি ট্রেন্ডিং #hashtag আছে

তখন যদি আপনি কোন tweet করতে চান ওই পোস্টটির সম্বন্ধে তাহলে আপনাকে সেই ট্রেন্ডিং #hashtag এর ব্যবহার করে সেই সমস্ত মানুষের চর্চায় জুড়তে পারবেন আর তারাও আপনার tweet দেখতে পাবে

Following আর Followers

এই দুটি শব্দ নিয়ে অনেক মানুষ confused থাকেন তাহলে আজ আমি আপনাদের এই দুটির সম্বন্ধে বিস্তারিত ভাবে বলবো

যখন আপনি কোন ব্যক্তিকে বা কোন টপিক কে follow করেন তখন সেটি হয় following

আর যখন কোন ব্যক্তি আপনাকে follow করে তখন সেটিকে বলা হয় আপনার follower

 

আমার শেষ কথা

বন্ধুরা আশা করছি আজকের এই পোস্টের মাধ্যমে আপনারা Twitter কি আর কিভাবে এটি শুরু হয়েছিল আপনি কিভাবে টুইটারে অ্যাকাউন্ট বানিয়ে এটির ব্যবহার করবেন এই সমস্ত তথ্য আপনারা ভালভাবেই বুঝে গিয়েছেন

যদি এই পোষ্টটির সম্বন্ধিত আপনাদের কোনো ধরনের প্রশ্ন থেকে থাকে তাহলে আপনারা নিচে দেওয়া কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে অবশ্যই জানাবেন আমি আপনাদের উত্তর দেওয়ার যথাযথ চেষ্টা করব

আর যদি আপনারা ব্লগিং এসইও আর ডিজিটাল মার্কেটিং এর সম্বন্ধিত গুরুত্বপূর্ণ ও সাহায্যকারী তথ্য পেতে চান তাহলে আমাদের এই ব্লগ টিকে অবশ্যই সাবস্ক্রাইব করে রাখুন এতে আমাদের নতুন করা পোস্টগুলোর নোটিফিকেশন আপনি পেয়ে যাবেন আর যদি আজকের এই পোস্ট টি পড়ে আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে এই পোস্টটিকে আপনাদের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যাঁ অবশ্যই শেয়ার করবেন ধন্যবাদ

Leave a Comment